স্টাফ রিপোর্টার

সাতক্ষীরা জজ কোর্টের পিপি অ্যাড. আব্দুল লতিফের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দূর্ণীতির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

সোমবার (০৩) মে দুপুর ১ টায় জেলা আইনজীবী সমিতিতে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে আদালত পরিচালনা করার জন্য বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট গত ১১ এপ্রিল একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

গত ২৬ এপ্রিল জেলা দায়রা ও জজ আদালতে একটি ধর্ষণ মামলার জামিন শুনানীকালে আসামীপক্ষের আইনজীবী হিসেবে তার (শাহ আলম) উপস্থাপিত বক্তব্যকে ঘিরে তার ল’ চেম্বারে হামলা চালান জজ কোর্টের পিপি অ্যাড. আব্দুল লতিফ ও তার সহযোগীরা।

ভার্চুয়াল পদ্ধতির বক্তব্য ব্যবহার করে পরদিন তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মিথ্যা মামলা করেন অ্যাড. আব্দুল লতিফ। যাহা সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ বিজ্ঞপ্তি ভঙ্গ করার শামিল।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, অ্যাড. আব্দুল লতিফেরে বিরুদ্ধে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের স্বাক্ষর জাল করে মাদক মামলার জামিনের আদেশ তৈরী, হত্যা মামলা থেকে অব্যহতি দেওয়ার নামে নয় লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণসহ নানা অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। সংবাদ সস্মেলন থেকে তিনি এ সময় অ্যাড.আব্দুল লতিফের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

আরসিএন ২৪ বিডি.কম / ৩ মে ২০২১
অনলাইন আপডেট : ০৫:৪৫ পিএম
ক চ জ