ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুরে খেজুরি থানার বিদ্যাপীঠ মোড় এলাকায় এক নারীর বিরুদ্ধে বটি দিয়ে শিশু সন্তানকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে । স্থানীয় সময় বুধবার (০২ জুন)এ ঘটনাটি ঘটে।

আনন্দবাজার পত্রিকার থেকে জানা , খেজুরি থানার বিদ্যাপীঠ মোড় বাজারে সকাল নয়টার দিকে এক নারী উচ্চস্বরে বলতে থাকেন, ‘ও বলেছিল, মা রান্না করো। এবার আর জ্বালাবে না। আমি ওর মাথা কেটে দিয়েছি। মাথা কেটে বেশ করেছি। আমার মেয়ের মাথা আমি কেটে দিয়েছি।’

এ সময় কৌতূহলী হয়ে আশপাশের লোকজন ওই নারীর ঘরে গিয়ে দেখেন, সত্যিই সে নারী তার নয় বছরের কন্যা শিশুর মাথা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন অবস্থায় বিছানায় পড়ে আছে।

"গুগল নিউজ এ রংপুর ক্রাইম নিউজের সর্বশেষ খবর পড়তে ক্লিক করুন"
গুগল নিউজ এ রংপুর ক্রাইম নিউজের সর্বশেষ খবর পড়তে ক্লিক করুন।

স্থানীয়রা বলেন, অভিযুক্ত নারীর নাম সাগরিকা পাত্র। তার স্বামী বিশ্বজিৎ পাত্র পেশায় মোবাইল মেকানিক। খেজুরির বিদ্যাপীঠ বাজারে ভাড়া করা দোকানের পেছনেই তারা থাকতেন। তার নয় বছরের মেয়েটি মানসিক প্রতিবন্ধী। পুলিশ জানায়, উনার মানসিক সমস্যা আছে বলে মনে হচ্ছে।

আরো পড়ুনঃ স্বামীকে কুপিয়ে হত্যাকরে ৬ টুকরো করেন স্ত্রী

দিনাজপুরের বিরলে এক জনকে কুপিয়ে হত্যা

যুবককে পিটিয়ে হত্যা

রংপুর ক্রাইম নিউজ : সকল খবর পড়তে ক্লিক করুন

অনলাইন আপডেট :০২জুন ,২০২১
আরসিএন২৪বিডি.কম