বগুড়া: কোনো ভাবে থামছে না চাল চুরি , এবার বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ ১০ টাকা দরের ১৬৮ বস্তা (৮৪০০ কেজি) চাল অবৈধভাবে মজুদ করার দায়ে নন্দীগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক মো. আনিসুর রহমান (৫০) এবং তার সহযোগী মো. আনসারকে (৪৩) আটক করেছে বগুড়া র‌্যাব-১২ সদস্যরা।

রোববার (১২ এপ্রিল)দুপুরের দিকে র‌্যাব-১২ ক্যাম্প থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয় শনিবার (১১ এপ্রিল) রাত ১টার দিকে উপজেলার ভাগশিমলা গ্রামে বগুড়া র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১২) এর সদস্যরা অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত খাদ্য অধিদপ্তরের স্থানীয় ডিলার মিলন আলী সরদার অভিযানকালে কৌশলে পালিয়ে যান।

জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার রাতে বগুড়া র‌্যাব-১২ এর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার মো. রওশন আলীর (সহকারী পুলিশ সুপার) নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি দল নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাগশিমলা গ্রামে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমানের বাড়িতে অভিযান চালনো হয়। এসময় তার বাড়ি থেকে দরিদ্র মানুষের জন্য বরাদ্দ ৫৮ বস্তা চাল এবং সিমলা বাজারে তার পরিত্যক্ত গোডাউন থেকে ১১০ বস্তা চাল (৮৪০০ কেজি) উদ্ধার করে র‌্যাব সদস্যরা।

নন্দীগ্রাম উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মুশফিকুর রহিম জানিয়েছেন, পলাতক ডিলার মিলন আলী সরদার তাদের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ডিলার। এ কর্মসূচির আওতায় হতদরিদ্র প্রত্যেক পরিবারের কাছে ১০টাকা কেজি দরে প্রতিমাসে ৩০ কেজি চাল বিক্রি করা হয়। তিনি বলেন, আমরা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছি।

র‌্যাব-১২ এর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার মো. রওশন আলী (সহকারী পুলিশ সুপার) জানান, গোপনে খবরটি পেয়ে শনিবার গভীর রাতে আনিসুর রহমানের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। তখন তার বাড়িতে মজুদ করা অবস্থায় ১০ টাকা কেজি দরের ১৬৮ বস্তা চাল পাওয়া যায়। পরে ওই বাড়ি থেকে তাকে ও তার সহযোগী আনসার আলীকেও আটক করা হয়। অভিযানকালে খাদ্য অধিদপ্তরের স্থানীয় ডিলার মিলন আলী সরদার কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

তিনি বলেন, আটক ও পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে র‌্যাবের পক্ষ থেকে বগুড়া ক্যাম্পের সহকারী পরিচালক (ডিএডি) সৈয়দ আলী বাদী হয়ে নন্দীগ্রাম থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

আরসিএন ২৪ বিডি ডট কম / ১২ এপ্রিল ২০২০