উপজেলায় বুধবার (৯ এ জুন) রাতে সড়ক দুর্ঘটনায় বৃদ্ধার মৃত্যু ও মর্যাদা (সম্ভ্রমহানি) হারিয়ে তরুনীর (১৭) আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। আত্মহত্যার ঘটনাটি নোহালি ইউনিয়নের চর বাগডহড়া গ্রামে এবং সড়ক দুর্ঘটনাটি গজঘন্টা ইউনিয়নের ওমর গ্রামে ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা পুলিশ সূত্র জানায়, বুধবার (১০ জুন ) রাত নয়টার দিকে ওমর গ্রামের আব্দুল আজিত এর স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৬২) বাড়ীর সামনে রাস্তা পারাপারের সময় দ্রুতগতিতে আসা মোটরসাইকেলের সাথে ধাক্কা লাগে। আনোয়ারা বেগম ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় মোটরসাইকেল চালক ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেলটি (নং- লাল-হ-১২-৭২৯২) ছেড়ে পালিয়ে যায়। মোটরসাইকেল চালকের ঠিকানা পরিচয় পাওয়া যায়নি। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের আওতায় রয়েছেমোটরসাইকেলটি ।

"গুগল নিউজ এ রংপুর ক্রাইম নিউজের সর্বশেষ খবর পড়তে ক্লিক করুন"
গুগল নিউজ এ রংপুর ক্রাইম নিউজের সর্বশেষ খবর পড়তে ক্লিক করুন।

চরাঞ্চলে স্থানীয়রা জানায়, একই দিন বিকেলে চর বাগডহরা গ্রামের আশ্রয়নের বাসিন্দা জিয়া এর মেয়ে মোনালিসা (১৭) নিজ ঘরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তারা জানান, ওই তরুনী প্রতিবেশী লম্পটদের হাত থেকে নিজের মর্যাদা (সম্ভ্রমহানি) বাঁচাতে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে । তারা আরো জানান, সম্প্রতি এলাকায় ২টি খুনের ঘটনায় পুলিশের ভয়ে পুরুষশূন্য রয়েছে আসামী পরিবারগুলো। তাদের কেউ কেউ দিনের বেলা বাড়িতে থাকলেও পুলিশের হাতে গ্রেফতার এড়াতে রাতের বেলা বাড়ির বাইরে অবস্থান করেন। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এলাকার বখাটেরা রাতের বেলা পুরুষশুন্য সুন্দরী মেয়েদের ঘরে হানা দেয় নিজেদের কুপ্রবৃত্তি চরিতার্থ করতে। এদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকার অনেক কিশোরী-তরুণীরা মর্যাদা (সম্ভ্রমহানি) বাঁচাতে এলাকার বাইরে স্বজনদের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছে। আশ্রয়নের বাসিন্দা দিনমজুর জিয়াও মামলার কারণে পলাতক থাকায় তার সুন্দরী তরুণী মেয়ে ওই বখাটেদের উৎপাতের শিকার হয়। তাই মেয়েটি বখাটেদের হাত থেকে রেহাই পেতে আত্মহত্যা করে।

এ ঘটনা পরিদর্শন করেন রংপুরের এএসপি (এ সার্কেল) আবু তৈয়ব মোঃ আরিফ হোসেন ও গঙ্গাচড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সুশান্ত কুমার সরকার । অফিসার ইনচার্জ জানান, আত্মহত্যার বিষয়ে কোন অভিযোগ না থাকায় ও এর প্রকৃত কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানতে না পাওয়ায় ওই তরুনীর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার এক জনপ্রতিনিধি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বখাটেদের উৎপাত থেকে বাঁচতে আরও চার-পাঁচ জন কিশোরী-তরুনী পুরুষশুন্য নিজ বাড়ি ছেড়ে বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে তাদের আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে অবস্থান করছে।

জুন ১০, ২০২১
আরসিএন ২৪বিডি ডট কম
আমাদের সকল নিউজ :RCN24bd.com