করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় টানা ১১ দিন বন্ধ থাকার পর আজ রবিবার (২৫ এপ্রিল) থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান ও শপিংমল ও ব্যবসায়িক দোকানপাট খুলেছে। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী রবিবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দেশের সব শপিংমল ও দোকানপাট খোলা রাখা যাবে।

তবে, বিভাগীয় শহর রংপুরে সব খুলতেই দেখা যায় সেই আগের মতো পুরোনো চেহেরায় ফিরেছে এই নগরীতে ।

আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত যে লকডাউন বা সরকারি বিধিনিষেধের বলবৎ আছে; রোববার সকালে সড়কের জনস্রোত দেখে তা বোঝার উপায় নেই! কোথাওই স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই।

মানুষ স্বাভাবিক নিয়মেই আবারও বাইরে বের হচ্ছেন এবং কেনাকাটাও করছেন। রোববার সকাল থেকেই রংপুরে বিভিন্ন সড়কে যানবাহন চলাচল আরও বেড়েছে শুধু তাই নয় সড়কে যানজট ছিল আগের মতো । এছাড়া হাট-বাজার, দোকানপাট, মার্কেট সর্বত্রই জনসমাগম দেখা গেছে সাধারণ দিন গুলোর মত। সুপার মার্কেটে যেন মানুষের ঢল নেমেছে। ব্যবসায়ীরাও তাদের দোকানপাট খুলে স্বাভাবিক নিয়মেই ব্যবসা করছেন। এছাড়া মার্কেটের সামনের সড়কের ব্যবসায়ীরাও আগের মত বিভিন্ন পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসেছেন। ব্যবসায়ীদের দাবি, তারা শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করেই তাদের দোকানপাট খোলা রেখেছেন।

রবিবার সকালে রংপুর মহানগরীর সিটি বাজার গিয়ে দেখা গেছে-সব দোকানই খুলেছে। প্রতিটি দোকানের সামনের অংশে কেবল নামকাওয়াস্তে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখা হয়েছে। ক্রেতা-বিক্রেতা কেউই তা ব্যবহার করছেন না। এছাড়া জীবাণুনাশক স্প্রে রাখা হলেও তা স্প্রে করা হচ্ছে না।
তবে, ব্যবসায়ীরা এখন মুখে মাস্ক পরে ব্যবসা করছেন। ক্রেতাদের মধ্যে কিছু সচেতন মানুষ মুখে মাস্ক পরছেন। তবে, নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব কেউই বজায় রাখছেন না। পাশে থাকা দায়িত্বরত পুলিশ বার বার হ্যান্ড মাইক নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য সবাইকে আহ্বান জানাচ্ছে ঠিকই। কিন্তু কেউ তার তোয়াক্কা করছেন না।

"গুগল নিউজ এ রংপুর ক্রাইম নিউজের সর্বশেষ খবর পড়তে ক্লিক করুন"
গুগল নিউজ এ রংপুর ক্রাইম নিউজের সর্বশেষ খবর পড়তে ক্লিক করুন।

মহানগরীর শাপলা চত্বর, লালবাগ রেলগেট, পৌর বাজার, পায়রা চত্বর সহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পুলিশ যানবাহন চলাচল সীমিত করার চেষ্টা করছে।

আরসিএন ২৪ বিডি.কম / ২৫ এপ্রিল ২০২১
অনলাইন আপডেট টাইম : ৩:৪৯ পিএম