চেয়ারম্যান ও মুসলিম যুবকরা শ্মশানে নিয়ে লাশ দাহ করল

76

লালমনিরহাটে হিন্দু সম্প্রদায় ও প্রতিবেশীরা সৎকারে অনীহা দেখালে উপজেলা চেয়ারম্যান ও মুসলিম যুবকরা শ্মশানে নিয়ে লাশ দাহ করল। মন্ত্রপড়লেন পুরোহীন বাড়িতে বসে মোবাইল ফোনে।

গ্রামবাসী ও নিজ হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ যখন ভয়ে সৎকার হতে মুখ ফিরিয়ে নিয়ে ছিল। তখন লালমনিরহাট সদর উপজেলার তরুণ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সুজন করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া মহেন্দ্রনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক রমেশ চন্দ্র রায়(৬১) অন্তেষ্টিক্রিয়া (দাহ) নিজে উদ্যোগে, নিজহাতে কয়েক জন মুসলিম সতীর্থদের নিয়ে দাঁড়িয়ে করিয়ে মানবতার এক অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। যাহা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসার ঝড় তুলেছে। বিষয়টিতে রাজনৈতিক শিক্ষাও আছে।বিপদে যে বন্ধু, সেই প্রকৃত বন্ধ। মন্ত্রপড়লেন পুরোহীন বাড়িতে বসে মোবাইল ফোনে। সীমান্ত ঘেঁরা জেলা লালমনিরহাট । হঠাৎ করে জেলায় ব্যাপক হারে করোনা সংক্রমণ বেড়ে গেছে। মৃত্যুর হারও বেড়েছে। গত ২৬ জুন লালমনিরহাট সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রমেশ চন্দ্র রায় (৬১) করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রংপুরে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে মারা যায়। একই দিন রাতে লাশ রংপুর থেকে নিজ বাড়িতে স্বজনরা লাশ-বাহী গাড়ি কওে নিয়ে আসে। মৃতদেহটি বাড়ির উঠানে রেখে লাশের গাড়ি চলে যায়। পরিবার পরিজন রাতে স্থানীয় শ্মশানে তাঁকে দাহ করতে প্রতিবেশী ও গ্রাম বাসীদের সহায়তা কামনা করে। প্রতিবেশী- গ্রামবাসীর সারা মিলেনি। তারা করোনা আক্রান্তের মৃতদেহর সৎকার করতে অনিহা প্রকাশ করে। এই খবর স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতার কর্মীদের মুখে মুখে ছড়িয়ে পড়ে। এই খবরে দ্রত ছুটে গিয়ে অসহায় পরিবারটির পাশে গিয়ে দাঁড়ায় জনদরদী ও মানবিক তরুণ নেতা সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ কামরুজ্জামান সুজন, তাঁকে সহায়তা করেন তরুণ লীগের নেতা মিজানুর রহমান মিজান। তাছাড়াও উপজেলা চেয়ারম্যানে খুব কাছের কয়েকজন মুসলিম যুবক। সুজন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। তিনি একজন সক্রিয় আওয়ামীলীগের কর্মী। উপজেলা চেয়ারম্যান সুজন রাত আড়াইটায় পরিবার, স্বজন ও কয়েক জন নিকট আত্মীয়সহ লাশ দাহ করতে স্থানীয় কাশিপুর গ্রামের শ্মশানে নিয়ে যায়। নিজেরাই স্বজনদের সহায়তায় ধর্মীয় আচার পালন করেন। কারণ হিন্দু ধর্মীয় আচারানুষ্ঠান পালনে ব্রাম্মণ্য পুরোহিতকে ডাওে পাঠালে তিনি আসেননি। অথচ স্থনীয় শ্মশানে একজন নিয়মিত পুরোহীত রয়েছেন। পওে অবশ্য মোবাইল ফোনে মন্ত্রউচ্চারণ করিয়ে স্বজনরা মুখাগ্নি করেন। এটা সম্ভব হয়েছে প্রযুক্তির বদৌলতে। শেষ পর্যন্ত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সুজনের প্রচেষ্টায় ও উপস্থিতিতে অষ্টিক্রিয়া বা দাহ সুসম্পন্ন হয়। অথচ জীবন দশায় এই মানুষটি কত সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন। আজ তার পাশে কোন রাজনৈতিক নেতা কর্মী কেউ ছিলনা। উপজেলা চেয়ারম্যানে এই মহৎ ও মানবিক কাজে প্রশংসিত হয়েছে। বর্তমান রাজনীতিতে এমন ঘটনা সত্যি বিরল যা প্রশংসাযোগ্য। রাজনীতি মানেই তো এখন স্বার্থ। এদিকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুজনের এই উদ্যোগ হিন্দু সম্প্রদায়ের খৃষ্টান ও বৌদ্ধ ধর্মীয় সাধারণ মানুষের মধ্যে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে। জাতির এই দুর্দিনে ও নিজ সম্প্রদায়ের এই দুর্দিনে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ ও পূজা উদযাপন পরিষদের লালমনিরহাট শাখা ও উপজেলা শাখার নেতা কর্মীরা কোথায়। করোনা আক্রান্ত মৃতদেহ সৎকারের পৃথক দুটি কমিটি গঠন ও অনুমোদন করা হয়েছে। গত ২১ জুন। তারা কোথায়। তারা কি শুধু মাত্র খাতা-কলম নামসর্বস্ব সৎকার কমিটি হয়ে থাকবে। প্রশ্ন উঠেছে এই সৎকার কমিটির একাধিক স্বেচ্ছাসেবকের বাড়ি মৃত রমেশ চন্দ্রের গ্রামে। তারা কেন? হাত-পা গুটিয়ে ছিল। জেলার কালীগঞ্জ থানার বুড়ির হাটে গ্রামে সিলেট ফেরত এক করোনা রোগী পহেলা জুলাই মারা যায়। সেই মৃতদেহ সৎকারে কেউ এগিয়ে আসেনি। করোনা সংক্রামনের ভয়ে। অথচ এই অঞ্চলের রাজনীতিক মানুষ নুরজ্জামান আহম্মেদ এমপি বর্তমান সরকারের সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী। এই মৃত দেহের সৎকার পরিবারের ৪ জন মাত্র সদস্য নিজেরাই করেছে। তারা এখন ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে আছে।

আমাদের করোনাবিষয়ক ওয়েবসাইড:coronavirus.rcn24bd.com
আমাদের ইংলিশ ওয়েবসাইড :uk.rcn24bd.com

  • গত ২৪ ঘন্টায় রামেকে ২১ জনের মৃত্যু

    গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

    এরমধ্যে রাজশাহী জেলায় ৭ জন, পাবনা জেলায় ৫ জন, নওগাঁর জেলায় ৪ জন, নাটোর জেলায় ৩ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় ১ জন ও ঝিনাইদহ জেলায় ১ জন করে মারা গেছেন।

    গত ২৪ ঘন্টায় করোনা পজেটিভ হয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা উপসর্গ নিয়ে বাকি ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

    রামেক হাসপাতালের পরিচালক শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি আরও জানান, গতকাল সোমবার সকাল আটটা হতে আজ মঙ্গলবার সকাল আটটা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটির করোনা ওয়ার্ডে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন মোট ৫৫ জন। এ নিয়ে মোট ৫১৩ বেডের বিপরীতে মোট ভর্তি রোগী আছেন ৩শত৯৯ জন।

    আমাদের করোনাবিষয়ক ওয়েবসাইড:coronavirus.rcn24bd.com
    আমাদের ইংলিশ ওয়েবসাইড :uk.rcn24bd.com

    ২৭ জুলাই, ২০২১ (মঙ্গলবার)
    আরসিএন ২৪বিডি ডট কম

    আমাদের সকল নিউজ :RCN24bd.com

  • পরকীয়ার জেরে হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ
    লালামনিরহাট প্রতিনিধিঃ
    লালমনিরহাটে ছোট ভাই আব্দুল জলিলের মৃত্যুর ৩ দিন পর বড় ভাই আব্দুর রশিদ ( ৪৫ ) অভিযোগ করেছেন পরকীয়ার জেরে তার ভাইকে হত্যা করা হয়েছে।

    রবিবার (২৫ জুলাই) সকালে লালমনিরহাট পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে জেলা সদরের খুনিয়াগাছ গ্রামের শাহার আলীর ছেলে আব্দুর রশিদ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

    অভিযোগ সূত্রমতে , আব্দুর রশিদের ছোট ভাই আব্দুল জলিল গত ২২ জুলাই রাতে মারা যান। তার স্ত্রী পরিবারকে না জানিয়ে তাড়াতাড়ি করে লাশ দাফন সম্পন্ন করার চেষ্টা করা হয়। পরে বড় ভাই আব্দুর রশিদ খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছে দেখতে পান তার ভাই আব্দুল জলীলের মরদেহ গোসল করিয়ে দাফনের জন্য রাখা হয়েছে। আব্দুর রশিদ তার অভিযোগে আরো উল্লেখ করেছেন তার ভাইয়ের নাক ও দেহের পিছনের অংশে রক্ত ঝরতে দেখেন।

    লিখিত ঐ অভিযোগে বলা হয়েছে, মৃত আব্দুল জলিলের স্ত্রী মমিনা বেগম ও শহরের তিন দিঘী মাঝাপাড়া বাজারের ঔষধ ব্যাবসায়ী রমজান আলীর ছেলে গোলাম রব্বানী (২৮) এর মধ্যে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে।

    পরকীয়ার জেরে বিভিন্ন সময়ে তাদের মাঝে ঝগড়া বিবাদও লেগেই থাকতো ।অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে জলীলের স্ত্রী মমিনা, রব্বানী ও ভাই আশরাফুল ইসলাম গত ২২ জুলাই রাত ১২টা থেকে রাত ২ টার মধ্যে জলিলকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে ।

    অভিযুক্ত মমিনা জানান, ঘটনার রাতে বাহির থেকে বাড়িতে আশার পর তাকে খাইতে বলি কিন্তু সে না খেয়েই শুয়ে পরে। তার কাছে কয়েকজন টাকা পাইতো তাই সে খুব চিন্তায় ছিল। এরপরে আমি পাশের বিছানায় দুই মেয়েকে সাথে নিয়ে ঘুমাই পড়ি। ভোরে ফজর নামাজ পড়তে উঠে বাইরে থেকে আসার পরে তাকে ডাক দেই সে কোনো সাড়াশব্দ না দেয়ায় আমি জোরে চিল্লানি দিলে আশপাশের লোকজন চলে আশে। পরে সবাই আসার পরে জানতে পাড়ি সে মারা গেছে।

    অভিযুক্ত মমিনার কাছে পরকীয়া প্রেমের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি অস্বীকার করে বলেন, তার ভাশুর তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেছেন।

    এদিকে অভিযুক্ত পরকীয়া প্রেমিক গোলাম রব্বানীর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, তিনি একজন পল্লী চিকিৎসক। মানুষকে সেবা দেওয়াই তার কাজ। তিনি মৃত আব্দুল জলিলের দাফনের আগে গোসল দিয়েছেন। এটাই তার অপরাধ। তাই তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে।

    লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম এ ব্যাপারে বলেন, অনুসন্ধান কাজ শুরু হয়েছে। অনুসন্ধানের আগেই কিছু বলা যাচ্ছে না।

    আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ২৬ জুলাই ২০২১

  • পীরগঞ্জে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপে মামলা: গ্রেফতার ১

    পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি : রংপুরের পীরগঞ্জের মদনখালি ইউনিয়নের হাসাপাড়ায় গ্রাম্য সালিশে এক গৃহবধুর ইজ্জতের মূল্য ৪৯ হাজার টাকা নির্ধারণে ধর্ষনের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেস্টা করে দালালচক্র।

    দালাল চক্রের হাতে অসহায় পরিবারটি জিম্মি হয়ে পড়ে। বিষয়টি জানাজানি হলে পুলিশ সুপার বিপ্লব কুমার সরকারের নির্দেশে সহকারী পুলিশ সুপার (ডি সার্কেল) কামরুজ্জামান গত রবিবার রাতে তদন্তে আসেন। পরে পুলিশি পাহাড়ায় ওই গৃহবধুকে থানায় নিয়ে আসা হয়। গৃহবধুর মা সাহেরন নেছা বাদী হয়ে নারী শিশু ও নির্যাতন দমন আইনে মামলা রুজু করে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাহাবুব মিয়াকে পুলিশ রাতেই গ্রেফতার করে।

    উল্লেখ্য উপজেলার মদনখালী ইউনিয়নের হাসারপাড়া গ্রামের হতদরিদ্র ভ্যান চালক আশরাফুল ইসলামের কন্যা’র প্রায় দেড় বছর পূর্বে পার্শবর্তী বড়আলমপুর গ্রামের বাচ্চা মিয়ার ছেলে সুজন মিয়ার সাথে বিয়ে হয়। বছর না পেরুতেই পারিবারিক কলহের জেরে ওই গৃহবধু বাবার বাড়িতে ফিরে আসে এবং স্থানীয় একটি কারখানায় কাজ নেয়। গৃহবধু তার কর্মস্থলে যাতায়াতের পথে লোলুপ দৃষ্টি পড়ে একই গ্রামের (হাসারপাড়া) প্রভাবশালী আবুল কাশেম মিয়ার ছেলে ১ সন্তানের জনক মাহাবুব মিয়ার।

    মাহাবুব সুকৌশলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই গৃহবুধুর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। প্রায় ৭মাস ধরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার নিজ বাড়িসহ বিভিন্ন স্থানে লালসা মেটায়। সম্প্রতি ওই গৃহবধু মাহবুবকে বিয়ের করার চাপ দিলে মাহবুব নানা টালবাহনা করতে থাকে। এক পর্যায়ে ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে গত ২৩ জুলাই দুপুরে ওই গৃহবধুসহ মা সাহেরন নেছা পীরগঞ্জ থানায় উপস্থিত হয়ে লিখিত অভিযোগ করে।

    খবর পেয়ে দালালচক্র মেয়ে পিতা আশরাফুলকে হুমকি-ধামকি দিয়ে মিমাংসার প্রস্তাব দেয়। ভয়ে থানায় উপস্থিত মা ও মেয়ে কৌশলে থানা থেকে ছিটকে পড়ে। দিনগত গভীর রাতে স্থানীয় তাজমল হোসেনের বাড়িতে মাতব্বর আব্দুর রহিম, মনোয়ার ও আফজাল হোসেন নির্যাতিত পরিবারের সঙ্গে মিমাংসা বৈঠকে বসেন।

    বৈঠকে ওই গৃহবধুর ইজ্জতের মূল্য ৫০হাজার টাকা নির্ধারণ করে অভিযুক্ত মাহাবুবকে মামলায় না জড়ানোর শর্তে কন্যার পিতার নিকট থেকে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর গ্রহণ করে। এবং নির্যাতিত পরিবারের হাতে ২৫ হাজার টাকা হাতে তুলে দেয়া হয়।

    ঘটনাটি জানাজানি হলে রংপুরের পুলিশ সুপার বিপ্লব কুমারের নির্দেশে ডি-সার্কেল কামরুজ্জামান তদন্তে আসেন।

    এ প্রসঙ্গে ডি সার্কেল কামরুজ্জামান বলেন মামলা রুজুর পর অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পাশাপাশি সালিশি বৈঠকে কারা কারা সর্ম্পৃক্ত ছিল তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

    আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ২৬ জুলাই ২০২১

  • মোট তিন বিষয়ে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা হবে

    গ্রুপভিত্তিক (বিজ্ঞান, মানবিক ও বাণিজ্যসহ অন্যান্য গ্রুপ) নৈর্বাচনিক মোট তিনটি বিষয়ে ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি সমমানের পরীক্ষা সময় ও নম্বর কমিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নেওয়া হবে।

    এছাড়াও, এবার নেওয়া হবে না আবশ্যিক ও ৪র্থ বিষয়ের পরীক্ষা। তবে সাবজেক্ট ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে আবশ্যিক বিষয় এবং ৪র্থ বিষয়ের নম্বর দিয়ে ফলাফলে যোগ করা হবে।

    আজ সোমবার (২৬ জুলাই) ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক আমিরুল ইসলামের সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

    বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, চলতি বছরের এসএসসি বা সমমান ও এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষা শুধু গ্রুপভিত্তিক ৩ টি নৈর্বাচনিক বিষয়ে পরীক্ষার সময় ও পরীক্ষার নম্বর কমিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেওয়া হবে। বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারী কারণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আবশ্যিক বিষয় ও ৪র্থ বিষয়ের কোনো পরীক্ষা নেওয়া হবে না।

    আরও বলা হয়েছে, জেএসসি বা সমমান ও এসএসসি বা সমমান পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতে ৪র্থ বিষয়ের নম্বর সাবজেক্ট ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে ২০২১ সালের এসএসসি বা সমমান ও এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার ফলে নম্বর দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে উচ্চ শিক্ষায় ভর্তিতে কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না।

    এ মুহূর্তে শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন কার্ডে চতুর্থ বিষয় পরিবর্তন বা সংশোধনের সুযোগ নেই বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

    আমাদের করোনাবিষয়ক ওয়েবসাইড:coronavirus.rcn24bd.com
    আমাদের ইংলিশ ওয়েবসাইড :uk.rcn24bd.com

    ২৬ জুলাই, ২০২১ (সোমবার)
    আরসিএন ২৪বিডি ডট কম

    আমাদের সকল নিউজ :RCN24bd.com

  • মিঠাপুকুরে আসছে প্রথম নারী ইউএনও

    রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে আসছেন ফাতেমাতুজ জোহরা। এর আগে তিনি “গাজীপুর সিটি করপোরেশনের” আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

    যোগদান করলে ফাতেমাতুজ জোহরাই হবেন মিঠাপুকুর উপজেলার ১ম নারী নির্বাহী কর্মকর্তা।

    “রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মোঃ আবদুল ওয়াহাব ভুঞা” গত জুলাই মাসের ২৫ তারিখ প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানা গেছে।

    মিঠাপুকুর উপজেলায় কর্মরত নির্বাহী কর্মকর্তা মামুন ভুঁইয়া পদোন্নতি পাওয়ায় তাকে ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বদলি করা হয়েছে।

    যদি নতুন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা যোগদান না করায় তিনিই দায়িত্ব পালন করছেন।

    আমাদের করোনাবিষয়ক ওয়েবসাইড:coronavirus.rcn24bd.com
    আমাদের ইংলিশ ওয়েবসাইড :uk.rcn24bd.com

    ২৬ জুলাই, ২০২১ (সোমবার)
    আরসিএন ২৪বিডি ডট কম

    আমাদের সকল নিউজ :RCN24bd.com

০৪ জুলাই, ২০২১ (রবিবার)
আরসিএন ২৪বিডি ডট কম

আমাদের সকল নিউজ :RCN24bd.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here