কেরলের বাসিন্দা, চিনের উহান বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীও তাঁর বিমান-সহযাত্রীর শরীরেও এনসিওভি সংক্রমণ সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। আশঙ্কা করা হচ্ছে, কলকাতা ছুঁয়েই করোনা ঢুকেছে কেরলে। করোনাভাইরাসের শঙ্কায় দিন কাটাচ্ছে গোটা দেশ। মূলত ভাইরাসের হানায় ঠান্ডা লেগে সর্দি-কাশি থেকেই এ অসুখের সূত্রপাত হয় ।

তবে যে কোনও বয়সীর শরীরেই হানা দিতে পারে এই করোনাভাইরাস। তাই সচেতনতার সঙ্গে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলাও এই সময় খুব প্রয়োজন। নিজেকে ঠান্ডা লাগার হাত থেকে বাঁচানোর অন্যতম একটি উপায়, বৃষ্টিতে না ভেজা।

এ দিকে শীতের বিদায়পর্বেও ঝড়বৃষ্টির আভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। ঋতু পরিবর্তনের মরসুমে ঠান্ডা লেগে অসুস্থ হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায় অনেক গুণ। এই সময় হাজারও সচেতনতার পরেও সহজে ভাইরাল ফিভার, সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত হন অনেকেই। করোনার হানায় এ বছর অসুখ ঠেকিয়ে রাখায় প্রয়োজনীয়তাও বেড়েছে অনেক গুণ। তাই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বিশেষ যত্নবান হওয়া খুবই জরুরি।