রংপুর : রংপুরে বিপুল পরিমানে নকল মুরাদ বিড়ি ও নকল সাদৃশ্য জাল ব্যান্ডরোল উদ্ধারসহ মোঃ আজাদ মিয়া (৪৫) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি) পুলিশ।

রবিবার (৯ মে) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রংপুর মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা বিভাগ এর সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডিবি) মোঃ ফারুক আহমেদ এর অপারেশন পরিকল্পনায় পুলিশ পরিদর্শক মোঃ ছালেহ্ আহাম্মদ পাঠানের নেতৃত্বে অফিসার ও ফোর্স এর সহায়তায় আরপিএমপি রংপুর কোতয়ালী থানাধীন ফায়ার সার্ভিস মোড়স্থ এসএ পরিবহন পার্সেল অফিসের সামনে চলাচলের পাকা রাস্তার উপর অভিযান পরিচালনা করে বিপুল পরিমানে মুরাদ বিড়ি নামক নকল বিড়ি উৎপাদন, মজুদ এবং নকল সাদৃশ্য জাল ব্যান্ডরোল উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত মালামালের বর্ণনা- সর্বমোট ০৬ (ছয়) টি কার্টুনে মোট ৪৬৫ (চারশত পয়ষট্টি) বান্ডিল, প্রতি বান্ডিলে ২০ (বিশ) প্যাকেট করে মোট (নয় হাজার তিনশত) প্যাকেট, প্রতি প্যাকেটের গায়ে ০১ (এক) টি করে জাল সদৃশ্য ব্যান্ডরোল সংযুক্ত আছে। মোট জাল ব্যান্ডরোল ৯৩০০ (নয় হাজার তিনশত) টি, ব্যান্ডরোলের মূল্য (নব্বই হাজার তিনশত তিন) টাকা, মোট বিড়ির মূল্য ১,৬৭,৪০০/- (এক লক্ষ সাতষট্টি হাজার চারশত ) টাকা, প্রতিটি বিড়ির প্যাকেটের গায়ে মুরাদ বিড়ি ও নিবন্ধন নং- ০০২৮৭৮১৪৩- ১০০১-১০০১ লেখা আছে।

গ্রেফতারকৃত মোঃ আজাদ মিয়া (৪৫) রংপুর হারাগাছের চান্দকুঠি এলাকার মৃত সেরাজ মিয়ার ছেলে।

নকল ব্যান্ডরোল উদ্ধারসহ গ্রেফতার ১

উল্লেখ্য যে, উক্ত ব্যান্ডরোলগুলো সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে তৈরী করা হয়েছিল।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডিবি এন্ড মিডিয়া) মোঃ ফারুক আহমেদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আরপিএমপি রংপুর কোতয়ালী থানায় ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-ক/২৫-ক(খ) ধারায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলমান। উক্ত অপরাধের সাথে জড়িত সদস্যদের তদন্তের মাধ্যমে খুজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে।

আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ৯ মে ২০২১
এ এফ