রংপুর: বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় পতাকা বিকৃতি ও অবমাননাকারী শিক্ষকদের বহিষ্কার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতারা।


রোববার (২০ ডিসেম্বর) স্থানীয় ২৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন পার্কের মোড়ে আয়োজন করা হয় মানববন্ধনের এ সময় নেতারা শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ।

মানববন্ধনে বক্তারা পতাকা বিকৃতি ও অবমাননাকারীদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার ও গ্রেফতার করে শাস্তির দাবি জানিয়ে বলেন, যারা দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রম ও ত্রিশ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত পতাকার মূল্য বোঝে না, তাদের এই দেশে থাকার অধিকার নেই। তারা এই দেশ ও জাতির শত্রু।

জাতি গড়ার কারিগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছ থেকে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।
বক্তারা বলেন, এর আগে মুজিববর্ষ উপলক্ষে গত ১৭ মার্চ জুতা পায়ে দিয়ে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছিলেন, তারাই আবার জাতীয় পতাকা বিকৃতি করেছে।
এরা জামাত-শিবিরের দোসর। খোলস পালটে তারা বারবার মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে অপমান করছে।
এদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন বক্তারা।
২৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নেছার আহমেদের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মহানগর যুবলীগের সভাপতি সিরাজুম মুনির বাসার, মহানগর সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রমজান আলী তুহিন, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নওশাদ রশিদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ওবায়দুর রহমান ময়না, সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শাহাদাৎ হোসেন, সদস্য ইদ্রিস আলী, ৩২ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি মাহবুবুর রহমান, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আসিফ, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ফয়সাল আজম ফাইন প্রমুখ।

আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ২০ ডিসেম্বর ২০২০
অনলাইন আপডেট : ১:৪৫ পিএম