খালেদা জিয়ার ৪টি মামলার কার্যক্রম স্থগিত

11

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী ও দারুস সালাম থানায় বিএনপি চেয়ারপারসন এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা ৪ টি নাশকতার মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

সেইসাথে এই ৪ মামলার অভিযোগ আমলে নেয়ার আদেশ বাতিল প্রশ্নে হাইকোর্টের জারি করা রুল দ্রুত নিষ্পত্তি করতে বলেছেন আদালত। তবে রুল নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে হাইকোর্টকে দিন-তারিখ কিংবা কোনও সময় বেঁধে দেননি আপিল বিভাগ।

রবিবার (২৩ আগস্ট) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ৫ বিচারপতির সমন্বয়ে গঠিত ভার্চ্যুয়াল আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

এদিন আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, তার সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

এর আগে গত সোমবার (১৭ আগস্ট) বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা নাশকতার এই ৪টি মামলার কার্যক্রম স্থগিত থাকবে মর্মে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ বহাল রাখেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ৬ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ। একইসঙ্গে ওইদিন এই ৪ মামলা নিষ্পত্তি করতে উচ্চ আদালতকে নির্দেশ দেন সর্বোচ্চ আদালত।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালে নাশকতার অভিযোগে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি, ২৩ ফেব্রুয়ারি ও ১ মার্চ দারুস সালাম থানায় ৩টি মামলা করে পুলিশ। একই বছরের ২৪ জানুয়ারি যাত্রাবাড়ী থানায় অপর মামলাটি দায়ের করেছিল পুলিশ।

এসব মামলায় এফআইআরে বেগম জিয়ার নাম ছিল না। কিন্তু ২০১৬ সালে চার্জশিট দেয়ার সময় পুলিশ খালেদা জিয়ার নাম অন্তর্ভুক্ত করে।

পরে এসব মামলার কার্যক্রম স্থগিত চেয়ে খালেদা জিয়া আবেদন করলে ২০১৭ সালের ১৩ এপ্রিল হাইকোর্ট এসব মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে দেন। হাইকোর্টের এই আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ আবেদন করলে ২০১৭ সালের ২৫ এপ্রিল চেম্বার আদালত হাইকোর্টের আদেশ ২ সপ্তাহের জন্য মুলতবি করেন।

তিন বছরেরও বেশি সময় গেল ১৭ আগস্ট আপিল বিভাগ শুনানি শেষে মামলার কার্যক্রম স্থগিত থাকবে মর্মে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখেন। একইসঙ্গে এই ৪ মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করতে হাইকোর্টকে নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ।
আরসিএন ২৪বিডি.কম/ ২৩ আগস্ট ২০২০
আপডেট সময় :২: ৪৭পিএম