আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
মিয়ানমারের রাষ্ট্রপতি উইন মিন্ট ও ক্ষমতাসীন দলের নেত্রী অং সান সু চি আটক হওয়ায় তার বিপক্ষের লোকজনকে ইয়াঙ্গুনের শহরের রাস্তাগুলোতে উল্লাস করতে দেখা গেছে।

সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিবিসি বাংলাসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে এমনি খবর দিয়েছে।
সু চির দল এলএনডি জানিয়েছে, যে তাদের নেতা সু চি জনগণকে এই সামরিক অভ্যুত্থান মেনে না নেওয়ার এবং প্রতিবাদ করার আহ্বান জানিয়েছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত ইয়াঙ্গুনে সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে কোনো প্রতিবাদ দেখা যায়নি।
তবে, সু চির বিপক্ষে শহরে উল্লাস করতে দেখা গেছে। এমনটাই জানিয়েছেন ইয়াঙ্গুনে বিবিসি বার্মিজ বিভাগের সংবাদদাতা নিয়েন চান আয়ে।

তিনি জানান, একদল স্ব-ঘোষিত ‘জাতীয়তাবাদী অ্যাক্টিভিস্টকে’ শহরে উল্লাস করতে দেখা গেছে। তাদেরই একজন বিবিসিকে জানিয়েছেন যে, তারা শহরজুড়ে আনন্দ মিছিল করবেন।

তবে, সু চির পক্ষে কোনো দল বা গোষ্ঠীকে রাস্তায় আন্দোলন বা বিক্ষোভ করতে দেখা যায়নি। গত কয়েক দিন ধরে কয়েকটি জাতীয়তাবাদী গোষ্ঠীকে ইয়াঙ্গুনে সেনাবাহিনীর সমর্থনে কর্মসূচি পালন করতে দেখা গেছে। মিয়ানমারে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে বলে জানা গেছে এবং এখনো অভ্যুত্থানের বিপক্ষে কোনো প্রতিবাদ বা বিক্ষোভ দেখা যায়নি। রাজধানী নেপিডোতে সরকার নিয়ন্ত্রিত টেলিফোন নেটওয়ার্কের শুধু টেলিফোন সেবা ফিরে এসেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।
আরসিএন ২৪বিডি.কম / ফেব্রুয়ারি ০১, ২০২১