কবির চৌধুরী জয়

রমজান মাস এমন একটি মাস যেই মাসে মুসলিম ধর্মলম্বিরা আল্লাহর সান্নিধ্য লাভের আশায় এক মাস সুবহে সাদিক থেকে সূর্যাস্থ পর্যন্ত সকল প্রকার পানাহার থেকে বিরত থাকেন। তাই এই মাসটি সকল মুসলিমদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি মাস।

যেমন রমজান মাসে রোজা থাকাটা জরুরী, ঠিক তেমনি রোজা রাখার নিয়ম ও ভাঙ্গার কারণ জানাটাও জরুরী। আসুন আমরা আজ জানবো রোজা ভাঙ্গার কারন সমূহ।

রোজা ভাঙে যেসব কারণে:

১. ইচ্ছাকৃত কিছু খেলে বা পান করলে।

২. স্ত্রীর সাথে সহবাস করলে।

৩. রোজা না ভেঙ্গে গেলেও, রোজা ভেঙে গেছে মনে করে ইচ্ছাকৃত কিছু খেলে।

৪. নিজের শরীরের দুই অঙ্গ অর্থাৎ কানে বা নাকে কোনো ধরনের ওষুধ দিলে।

৫. ইচ্ছা করে মুখ ভরে বমি করলে অথবা অল্প বমি আসার পর তা গিলে ফেললে।

৬. কুলি করার সময় হলকের নিচে পানি চলে গেলে (অবশ্য রোজার কথা স্মরণ না থাকলে রোজা ভাঙ্গবে না)।

৭. কামভাবে কাউকে স্পর্শ করার পর বীর্যপাত হলে।

৮. খাদ্য না এমন বস্তু খেলে যেমন: কাঠ, কয়লা, লোহা ইত্যাদি।

৯. ধূমপান করলে।

১০. আগরবাতি ইত্যাদির ধোঁয়া ইচ্ছা করে নাকে ঢোকালে।

১১. রাত্রি আছে মনে করে সুবহে সাদিকের পর পানাহার করলে।

১২. ইফতারের সময় হয়ে গেছে মনে করে সময়ের আগেই ইফতার করে ফেললে।

১৩. দাঁত দিয়ে বেশি পরিমাণ রক্ত বেরিয়ে তা ভেতরে চলে গেলে।

১৪. জবরদস্তি করে কেহ রোজা ভাঙ্গালে ।

১৫. হস্তমৈথুন দ্বারা বীর্যপাত ঘটালে।

১৬. মুখে পান রেখে ঘুমিয়ে পড়ে সুবহে সাদিকের পর নিদ্রা হতে জাগরিত হওয়া এ অবস্থায় শুধু কাজা ওয়াজিব হবে।

১৭. রোজার নিয়ত না করলে।

১৮. কানের ভেতরে তেল ঢোকালে।

১৯.মহিলাদের হায়েয ও নিফাসের রক্ত বের হওয়া।

২০.শিঙ্গা লাগানো কিংবা এ জাতীয় অন্য কোন কারণে রক্ত বের করা।

২১.ইনজেকশান বা স্যালাইরনর মাধ্যমে দেমাগে ওষধ পৌছালে।

২২.কংকর পাথর বা ফলের বিচি গিলে ফেললে।

২৩.আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহি ওয়া সাল্লাম) উপর মিথ্যারোপ করা এবং এহতিয়াতে ওয়াজিবের ভিত্তিতে রাসূলের (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহি ওয়া সাল্লাম) স্থলাভিষিক্তের উপর মিথ্যারোপ করা।

আরসিএন ২৪ বিডি.কম / ২৫ এপ্রিল ২০২১
অনলাইন আপডেট : ১০:৪৫ পিএম

June 2021
F S S M T W T
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930