বুকে ব্যথা অনেক কারণেই হতে পারে
তবে ব্যথা হলে বা একই স্থানে বার বার ব্যথা অনুভব করলে অবশ্যই চিকিৎসকদের পরামর্শ নেওয়া জরুরী।
বুকের বাম দিকে ব্যথা হলে তা সাধারণত হৃদরোগের সঙ্গে এর সম্পর্কিত থাকে।

সাধারণত হৃদরোগে কেউ আক্রান্ত হলে সঙ্গে আরও আরো কিছু উপসর্গ দেখা দেয়। এর মধ্যে যেমন শ্বাসকষ্ট, বাম বা ডান হাতে তীব্র ব্যথা, ঘাড়, কাঁধ, চোয়াল এবং পিঠেও তীব্র ব্যথা দেখা দেয়। এছাড়া কারও কারও হৃদস্পন্দন বেড়ে যায়, বমি বমি ভাব, অস্বাভাবিক ঘাম এবং মাথা ঘোরা দেখা যায়।

তবে বুকে ব্যথা হলেই যে সবসময় হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার সংকেত দেয় এমনটা নয়। কখনও কখনও এটা অন্য কারণেও হতে পারে। যেমন-

১. প্যানিক অ্যাটাক হলে বুকে ব্যথা হতে পারে। সেটা কয়েক মিনিট স্থায়ী হয়। তারপর কমে যায়। প্যানিক অ্যাটাকের কারণে মাংসপেশী শক্ত হয়ে যায়, তখন বুকে বা অন্যান্য স্থানেও ব্যথা দেখা দেয়। তখন অনেকেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন বলে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। তাতে পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে পড়ে। সাধারণত অতিরিক্ত উৎকন্ঠা বা দুশ্চিন্তা থেকেই এমন হয়। যদি ঘন ঘন এটা হয় তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

২. অনেকসময় ঝাল, অ্যাসিডিক,ক্যাফেইন জাতীয় খাবার খেলে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দেখা দেয়। তখন বুকে ব্যথা হতে পারে।

৩. বেশী ভারী জিনিস বহন করলেও অনেকসময় মাংসপেশী শক্ত হয়ে যায়। তখন বুকে ব্যথা হতে পারে।

৪. আপনি যখন বিষণ্নতায় থাকেন তখন হৃদস্পন্দনের হার বৃদ্ধি পায় এবং দ্রুত রক্ত প্রবাহিত হয়। যার ফলে হঠাৎ বুক ব্যথা শুরু হয়।

তবে চিকিৎসকদের মতে, বুকে ব্যথা হলে তা অবহেলা করা ঠিক নয়। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়তো নাও হতে পারেন কিন্তু এ ব্যাপারে সতর্ক থাকা উচিত।

সূত্র: হেলদিবিল্ডার্জড

আরসি এন ২৪বিডি. কম /১১ মে ২০২১