পীরগঞ্জ(প্রতিনিধি) : রংপুরের পীরগঞ্জে মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর, লুটপাটের ঘটনায় একই পরিবারের মহিলাসহ ৫জন আহত হয়েছে।

গত সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাতে উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের জামিরবাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় ২জনকে পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও ভূক্তভোগী পরিবার সূত্রমতে, একই ইউনিয়নের হলদিবাড়ি গ্রামের হাসেন মিয়ার পুত্র ভাংড়ি ব্যবসায়ী আবু হোসেনের (৩২) একটি এ্যান্ড্রয়েট মোবাইল ফোন হারিয়ে গেলে পাশবর্তী জামিরবাড়ী গ্রামের হাসেন আলীর পুত্র পাপলু মিয়া (১৬)কে সন্দেহ করা হয়। এরই সূত্র ধরে ব্যবসায়ী আবু হোসেন ক্ষিপ্ত হয়ে তার ভাড়াটে ১৫/২০ জন লোকজন নিয়ে হাসেন আলীর বাড়িতে যায়। এ সময় অভিযুক্ত পাপলুকে বাড়িতে না পেয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। হামলাকারীরা ২টি ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর, মুল্যবান জিনিষপত্র ও বাড়ি নির্মাণের জন্য ব্যাংক থেকে তোলা ঘরে রক্ষিত নগদ ৯০ হাজার টাকা লুটে নিয়ে যায়। এতে বাধা দিতে গেলে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী সেতুমনি, ভাবি শাকিলা বেগম (১৯), ভাই মিজানুর (২২), মা মোর্শেদা বেগম (৪৫), ও মিজানুরের স্ত্রী কাজলী বেগম (১৮)কে পিটিয়ে আহত করা হয়।

আহতদের মধ্যে মিজানুর ও মোর্শেদা বেগমকে পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

আরসিএন ২৪ বিডি.কম / ২০ এপ্রিল ২০২১