ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় টাঙ্গন নদীর পাড়ে পৃথক স্থানে স্বামী সাইজুল ইসলাম (৪০) ও স্ত্রী আসমা বেগমের (৩৫) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারী ) বেলা ১১টার দিকে আকচা ইউনিয়নের বরুনাগাঁও হাজীবস্তির এলাকার টাঙ্গন নদীর পাড় থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত সাইজুল ইসলাম ঠাকুরগাঁও পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের আকচা কাজীপাড়া এলাকার বাসিন্দা এবং তার দ্বিতীয় স্ত্রী আসমা বেগম (৩৫)।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভিরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, পুলিশের জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯ এর মাধ্যমে খবর পাওয়া যায়, সদরের আকচা ইউনিয়নের বরুনাগাঁও হাজীবস্তি এলাকার টাঙ্গন নদীর পশ্চিম পাড়ে একজনের লাশ পড়ে রয়েছে। খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে তাৎক্ষণিক পুলিশ পাঠানো হয়। এরপর সেখান থেকে সাইজুল ইসলামের লাশ উদ্ধার করা হয়। প্রায় ঘণ্টাখানেক পর ওই টাঙ্গন নদীর পূর্ব পাশে নিহত সাইজুল ইসলামের দ্বিতীয় স্ত্রী আসমা বেগমের গলাকাটা অবস্থায় লাশ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, সুরতহাল রিপোর্ট করার সময় নিহত সাইজুল ইসলামের মুখে কীটনাশকের গন্ধ পাওয়া গেছে। আর দ্বিতীয় স্ত্রী আসমা বেগমকে গলাকাটা অবস্থায় পাওয়া গেছে। এছাড়া নিহত সাইজুল ইসলাম ও তার স্ত্রী আসমা বেগমের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ঠাকুরগাঁয়ে পৃথক স্থানে স্বামী- স্ত্রী লাশ উদ্ধার

গলাকাটা দেখে হত্যাকাণ্ড বলে মনে হচ্ছে। তবে স্বামী ও স্ত্রীর লাশ পৃধক জায়গায় পাওয়ায় মৃত্যু রহস্য নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।বিষয়টি তদন্ত চলছে।তদন্ত শেষে বলা যাবে দুটোই হত্যাকাণ্ড নাকি স্ত্রীকে হত্যা করে স্বামী আত্মহত্যা করেছে।
সেই সঙ্গে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১
এ এফ