মুক্তিযুদ্ধাকে চুরির মিথ্যা অপবাদ, ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম মুক্তিযোদ্ধা সংসদের

- Advertisement -
- Advertisement -

নিজস্ব সংবাদদাতা, লালমনিরহাট:
লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের জরুরি বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত। প্রবীণ মুক্তিযোদ্ধাকে গরু চুরির মিথ্যা অপবাদে রশি দিয়ে বেঁধে নিয়াতনকারী ভেলাগুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মহির উদ্দিন কে ২৪ ঘন্টা মধ্যে গ্রেফতার করার দাবিতে আল্টিমেটাম মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ইউনিটের।


জানা গেছে, গরু চুরির মিথ্যা অপবাদ দিয়ে ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মহির উদ্দিন প্রবীণ মুক্তিযুদ্ধা আকবার আলী ধনীকে(৭০) চেয়ারের সাথে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় মুক্তিযুদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধার সন্তান কমান্ডা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।
আজ সোমবার সন্ধ্যা তারা জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার মুক্তিযুদ্ধা সংসদ কার্যালয়ে এক জরুরি সভা আহবান করেন। এই সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয়। আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ওই ইউপি চেয়ারম্যান ও চেয়ারম্যানে সহযোগী চৌকিদার রবিউল, জাহাঙ্গীর সহ দায়ী ৬ চৌকিদার কে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করেন।


এই ব্যতিক্রম হলে সারা দেশে মুক্তিযুদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধার সন্তান গণ দেশপ্রেমিক মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিশ্বাসী দেশবাসীদের সাথে নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলন করবেন। নেতৃবৃন্দ মুক্তিযুদ্ধাকে অসম্মান ও নির্যাতনের সুষ্ঠু বিচার পেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মুক্তিযুদ্ধা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা করেন।


জানা গেছে, শনিবার জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান একই ইউনিয়নের মুক্তিযুদ্ধা সংসদ ইউনিটের কমান্ডার প্রবীণ মুক্তিযুদ্ধা বয়সের ভারেনত আকবার আলী ধণী(৭০) কে তার ছেলে প্রতিবেশীর গরু চুরি করেছে এই অপবাদ দিয়ে মুক্তিযুদ্ধা পিতাকে বাড়ি হতে ইউপি চেয়ারম্যান ও ৬ জন চৌকিদার টানাহ্যাঁচড়া করে চেয়ারম্যানের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে একটি ঘরে আটক করে রাখেন। এই সময় ইউপি চেয়ারম্যানের সামনে ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশ চৌকদার রবিউল, জাহাঙ্গীরসহ ৬ জন চৌকিদার তাকে পিটমোড়া করে চেয়ারের সাথে বেঁধে নির্যাতন করেন। পর ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় গ্রামবাসীরা মুক্তিযুদ্ধাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসেন। বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক তোলপাড় ও সমালোচনা হয়। পরে রবিবার রাতে হাতীবান্ধা থানায় মুক্তিযুদ্ধা বাদি হয়ে চেয়ারম্যান মহির উদ্দিন, চৌকিদার রবিউল, চৌকিদার জাহাঙ্গীর সহ ৬ জনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার বাদি হয়েছেন মুক্তিযুদ্ধা আকবার আলী ধণী নিজেই। দৈনিক জনকন্ঠ পত্রিকায় মুক্তিযুদ্ধা কে গরু চুরির মিথ্যা অপবাদ দিয়ে ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও চৌকিদার গণ চেয়ারের সাথে বেঁধে নির্যাতন করার ঘটনার খবর প্রকাশ হয়। এই খবর প্রকাশের জের ধরে পুলিশের একজন এএসপি, হাতীবান্ধা থানার ওসি তদন্ত, মানবাধিকার কর্মী, সহযোদ্ধা মুক্তিযুদ্ধাগণ ও মুক্তিযুদ্ধার সন্তান কমান্ডের নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থলে গিয়ে তথ্য প্রমান সংগ্রহ করেছেন।

তারা এই ধৃষ্টতাপূর্ণ বর্বর ঘটনায় দায়ে চেয়ারমান ও চৌকিদার গণ কে ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করেছেন।জেলা প্রশাসক মোঃ আবু জাফর জানান, এই ঘটনায় হাতীবান্ধা থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। মামলার কাগজ উপজেলায় ইউএনও’র কাছে পৌচ্ছলে তাকে ইউপি চেয়াম্যানের দায়িত্ব হতে সাময়িক বরখাস্ত করা হবে। এটা স্থানীয় সরকার আইন। এর কোন ব্যতয় হবে না।

আরসিএন ২৪বিডি. কম / জি এম
৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

- Advertisement -
Latest news
- Advertisement -
Related news
- Advertisement -
লাউয়ের যত গুন্ তাজহাট জমিদার বাড়ি health News Rangpur Crime News