করোনা ভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়ে আরও ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৮৩৩ জনের।


এই ভাইরাসে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৮৯০ জন। সবমিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ২৪ হাজার ৯১০ জনে।
বুধবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৮৪১ জন।
এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন চার লাখ ৬৯ হাজার ৫২২ জন।
সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৯৯ টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে।

এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১১৫ টি, জিন-এক্সপার্ট ২৮ টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ৫৬ টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৬ হাজার ৩৩৮ টি। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৭২৭ টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩৪ লাখ এক হাজার ৫০৬ টি।
বিজ্ঞপ্তিতে নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ১৪ জনের মধ্যে ছয়জন পুরুষ ও নারী আটজন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে দুইজন, খুলনা ও সিলেট বিভাগে একজন করে দুইজন রয়েছেন। তাদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ১৩ জন, বাড়িতে একজন।
মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে ১০ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে চারজন রয়েছেন।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ১১৬ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ১২৮ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন ৯৭ হাজার ৭৭৬ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৮৬ হাজার ৫৮০ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১১ হাজার ১৯৬ জন।
দেশে গত ৮ মার্চ করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত (কোভিড-১৯) প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।
আপডেট সময় : জানুয়ারি ১৩, ২০২১

আরসিএন ২৪ বিডি. কম / জিএমএম