রংপুর : রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৮টি বুথের মাধ্যমে করোনার টীকা প্রদান শুরু হয়েছে ।

রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল সোয়া ১০টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কোভিড কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রংপুর সিটি করর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা প্রথম টীকা গ্রহন করে করোনা টীকা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

এরপর রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ  অধ্যাপক ডা. এ কে এম নূরুন্নবী লাইজু ও সিভিল সার্জন ডা. হিরম্ব কুমার রায়, রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসানসহ পর্যায়ক্রমে সহযোগী ডাক্তারবৃন্দ সহ ডাক্তার, নার্স , আয়া সহ চিকিৎসার সাথে সংপৃক্তরা এরপর পর্যায়ক্রমে টীকা গ্রহণ করেন ।

রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা টীকা দিয়ে বলেন, টীকা দেয়ার ব্যাপারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেতিবাচক প্রচারনা করা হচ্ছে। এসব গুজবে কান না দিয়ে সকলকে টীকা নেয়ার আহবান জানান তিনি।

রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যাক্ষ অধ্যাপক ডাক্তার নুরন্নবী লাইজু টীকা গ্রহন করে বলেন টীকা নেয়ার সময় কোন ব্যাথা অনুভুত হয়নি এবং দেয়ার পরেও কোন সমস্যা হয়নি। তিনি নিজেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ।

রংপুরে করোনার টীকা প্রদান শুরু

তিনি বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা অনেক আগে দেশে টিকা এনে যে দৃঢতার পরিচয় দিয়েছেন সে জন্য তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং সকলকে করোনার টীকা নেয়ার আহবান জানান।

এসময় সিভিল সার্জন হিরম্ব কুমার রায় জানান, শনিবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত জেলায় সাত হাজার ৬৩২ জন রেজিস্ট্রেশন করেছেন। এরমধ্যে চিকৎসক রয়েছেন ৫০০ জন। রংপুরে প্রথম ধাপে সাত উপজেলায় সাতটি এবং সিটি কর্পোরেশন’ এলাকার জন্য আটটি বুথের মাধ্যমে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হয়েছে। সিটির ভেতরে রংপুর মেডিকেল কলেজ ‘হাসপাতালে এবং উপজেলা গুলোতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে এসব টিকা দেয়া হবে। প্রথম দিন ১৫শ জনকে টিকা দেয়া হবে। পর্যায়ক্রমে আরও ডোজ আসলে নিয়ম মাফিক এসব টিকা দেয়া হবে। সিভিল সার্জন হিরম্ব কুমার রায় আরও জানান, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, মুক্তিযোদ্ধা, প্রশাসনের কর্মকর্তা ও ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেয়া হবে। টিকা দেয়ার কাজে নিয়োজিত স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। ‘ভ্যাকসিন পেতে অনলাইনে বাধ্যতামূলক রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশন ছাড়া ভ্যাকসিন গ্রহণ করা যাবে না।

 

আরসিএন ২৪ বিডি. কম / ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১